ত্বকের যত্ন করতে সরিষার তেলের ভূমিকা জেনে নিন

ত্বকের যত্ন করতে সরিষার তেলের ভূমিকা জেনে নিন

ঝাঁঝালো স্বাদের জন্য সরিষার তেল অনেকেরই পছন্দ। বিভিন্ন রকম রান্নার কাজে, ভর্তা কিংবা আচার তৈরিতে সরিষার তেল দরকার পড়েই। কিন্তু শুধু স্বাদের জন্য নয়, এটি আরও নানা কারণে প্রয়োজনীয়। শরীরের নানা সমস্যা দূরে রাখতে সরিষার তেল ভীষণ কার্যকরী।ত্বক ভালো রাখতেও এই তেল সমান উপকারী। মুখে সরিষার তেল দিয় মালিশ করলে ত্বকে অনেক উপকার মেলে। সরিষার তেল দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে মুখের দাগ দূর হবে সহজেই। তাহলে জেনে নেওয়া ত্বকের যত্ন করতে সরষের তেল কিভাবে সাহায্য করে।

১.ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে- ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে প্রতি রাতে সরিষা ও নারকেল তেল মিশিয়ে দশ মিনিট ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। তারপর ভালো করে মুখ ধুয়ে ঘুমাতে গেলে ত্বক হবে নরম ও উজ্জ্বল।

২.রোদে পোড়া দাগ ঠেকাতে- ত্বকের রোদে পোড়া দাগ ঠেকাতেও সরিষার তেলের জুড়ি মেলা ভার। এজন্য বেসন, দই ও লেবুর রসের সঙ্গে সরিষার তেল মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট ব্যবহার করতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে।

৩.ত্বকে বার্ধক্য এর ছাপ দূর করে- এই তেলে রয়েছে ভিটামিন এ, ই এবং বি কমপ্লেক্স। নিয়মিত সরিষার তেল ব্যবহারে ত্বকে বার্ধ্যক্যের ছাপ পড়ে না। 

৪.সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মির হাত থেকে- সানস্ক্রিন না থাকলেও সমস্যা নেই। এর পরিবর্তে সামান্য সরিষার তেল ব্যবহার করতে হবে। সূর্যের ক্ষতিকারক আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে ত্বককে বাঁচাবে। 

৫.শুষ্ক ত্বকের জন্য- এছাড়াও সরিষার তেলে রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটিরিয়াল ও অ্যান্টি ফাঙ্গাল উপাদানে ভরপুর। তাই অ্যালার্জি, র‌্যাশ, চুলকানি ও শুষ্ক ত্বকের জন্য এটি খুবই ভালো একটি উপাদান।

৬.মুখে দাগ দূর করতে- ত্বক ভালো রাখতেও এই তেল সমান উপকারী। মুখে সরিষার তেল দিয় মালিশ করলে ত্বকে অনেক উপকার মেলে। সরিষার তেল দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে মুখের দাগ দূর হবে সহজেই।