ত্বকের যত্নে মেথি কিভাবে ব্যবহার করবেন জেনে নিন

ত্বকের যত্নে মেথি কিভাবে ব্যবহার করবেন জেনে নিন

মেথি কে আমরা সাধারণত মশলা হিসেবে চিনি। আবার মেথিকে যে শুধু মশলাই না, খাবার এমনকি ঔষধও বলা হয়ে থাকে, সেটাও জানি। মেথি রক্তে শর্করার পরিমাণ কমানোর পাশাপাশি শরীরের আরো অনেক উপকার সাধন করে থাকে। অনেকেই জানে যে মেথি চুলের যত্নে খুবই উপকারি। কিন্তু এটি যে ত্বকের যত্নেও সমানভাবে কার্যকর সেটা হয়তো অনেকেরই অজানা। তাহলে জেনে নেওয়া যাক ত্বকের যত্নে মেথির উপকারিতা সম্পর্কে।

১.মেথি দুধ- মেথি ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার করে। এটি ত্বকের লোমকূপগুলো খুলে দেয় আর ত্বকের ভেতরে থাকা ময়লাগুলো খুব সহজে বের করে আনে আর তাই ত্বক হয় গভীর থেকে পরিষ্কার। প্রথমে মেথি ৪-৫ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ডারে পেস্ট করে নিতে হবে। এবার ১ টেবিল চামচ মেথি পেস্টের সাথে ২ চা চামচ কাঁচা দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর চোখের এড়িয়া বাদে পুরো মুখ ও গলায় লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রাখতে হবে। হালকা গরম জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে।

২.মেথি ও টক দই- টকদই যে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে খুব সহায়ক এটা অনেকেই জানে। এই টক দই যদি মেথির সাথে ব্যবহার করা হয় তাহলে তা আরো অধিক পরিমাণে ফলদায়ক হবে। ১ টেবিল চামচ মেথি গুঁড়া করে বা পেস্ট বানিয়ে এর সাথে সমপরিমাণ টকদই মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর মুখে ও গলায় লাগিয়ে রাখতে হবে ৩০ মিনিট। এরপর ভালো ভাবে ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার ক্রিম লাগিয়ে নিতে হবে। এই প্যাকটি খুব দ্রুত ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।

৩.মেথি ও মধু- মেথি ও মধুর ব্যবহারে ত্বকের মরা চামড়া দূর হয়। ১ চা চামচ মেথি পেস্টের সাথে ১ চা চামচ মধু ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখতে হবে প্রায় ২০ -৩০ মিনিট। তারপর হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এবার ত্বকে পছন্দমত টোনার লাগিয়ে নিতে হবে। গোলাপজল ও লাগাতে পারেন। এই প্যাকটি ত্বক উজ্জ্বল করার পাশাপাশি ত্বকের মরা-চামড়া দূর করে ও ত্বকের বিভিন্ন এলার্জি, ব্রণ ইত্যাদি কমাতে সাহায্য করে।

৪.মেথি ও অলিভ অয়েল- এই প্যাকটি ত্বক থেকে রোদে পোড়া দাগ দূর করে দেয়। প্রথমে ২ টেবিল চামচ মেথি বীজ ভালো করে ধুয়ে জল দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে হবে। তারপর সেই জলটা ছেকে নিয়ে ঠান্ডা করে ফ্রিজ এ রেখে দিতে হবে। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১ চা চামচ মেথি সিদ্ধ করা জলের সাথে ১ চা চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মুখে, গলায় ও হাতে লাগিয়ে ঘুমাতে যেতে হবে। নিয়মিত ব্যবহারে এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াবে ও ত্বকের রোদে পোড়া দাগ দূর করার পাশাপাশি ত্বকের ছোপ ছোপ দাগ ও দূর করবে।

৫.মেথি ও গোলাপজল- ১ টেবিল চামচ মেথি সারারাত ভিজিয়ে রেখে পেস্ট তৈরি করতে হবে। তারপর এই পেস্ট এর সাথে ২ চা চামচ গোলাপজল ও ১ চা চামচ দই মেশাতে হবে। এই প্যাকটি ত্বকের হারানো উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে দারুণভাবে কাজ করবে। যাদের ত্বক খুব খারাপ হয়ে গেছে, অনেক ফেসপ্যাক ব্যবহার করেও যাদের কিছুই হচ্ছে না তারা এই প্যাকটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৬.মেথি ও বেসন- মেথি ত্বকের ভাঁজ পড়া, রিঙ্কেল ও চামড়া শুকিয়ে যাওয়া রোধ করতে খুবই উপকারী। কারন এটি শরীরের ফ্রি র‍্যাডিকাল ধংস করে দেয় এবং ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। মেথির পেস্টের সাথে অল্প জল বা কাঁচা দুধ যোগ করে এর সাথে বেসন মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিতে হবে। প্যাকটি ২৫-৩০ মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে হবে। এই ফেসপ্যাকটি ত্বককে কালো হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে ও ডার্ক সার্কেল ও ফাইন লাইনস কমায়।