সহজ উপায়ে পা ব্যাথা দূর করবেন কিভাবে জেনে নিন

সহজ উপায়ে পা ব্যাথা দূর করবেন কিভাবে জেনে নিন

আমাদের মধ্যে পা ব্যথা নেই এমন মানুষ পাওয়া খুব কঠিন। হালকা ব্যথা থেকে তীব্র ব্যথা হতে পারে বৃদ্ধ থেকে তরুণ যে কারো। সাধারণত পেশীতে টান পড়া, বৃদ্ধ বয়স, অনেক বেশি হাঁটাসহ বিভিন্ন কারণে হতে পারে পায়ে ব্যথা। তবে এর জন্য প্রাথমিক পর্যায়েই বড় ধরণের কোনো পদক্ষেপের প্রয়োজেন নেই। আপনি নিজেই তাৎক্ষনিক ভাবে এর চিকিৎসা করতে পারেন। কিছু ঘরোয়া উপায়ে সহজেই মুক্তি পাওয়া যায় এই যন্ত্রণা থেকে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে।

১.আ্যপেল সাইডার ভিনিগার- অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার কুসুম গরম জলেতে এক থেকে দুই কাপ বিশুদ্ধ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার মিশিয়ে নিতে হবে। এই মিশ্রণে পা দুটি ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে। এটি দিনে একবার করতে হবে। এভাবে কয়েকদিন করতে হবে। এছাড়া এক বা দুই টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার এক গ্লাস কুসুম গরম জলেতে মিশিয়ে নিতে হবে। এরসাথে সামান্য পরিমাণ বিশুদ্ধ মধু মেশানো যেতে পারে। এটি দিনে দুইবার পান করতে হবে।

২.হলুদ- হলুদ পায়ের ব্যথা দূর করণীয় আরেকটি কার্যকরী উপায় হলো হলুদ। এক চা চামচ হলুদের সাথে কুসুম গরম  তিলের তেলের সাথে মিশিয়ে নিতে হবে। এই মিশ্রণটি দিয়ে পায়ের ব্যথার স্থানে ৩০ মিনিট ম্যাসাজ করতে হবে। এটি দিনে দুইবার করতে হবে। এছাড়া গরম দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে পান করা যেতে পারে। এটি দিয়ে দুইবার পান করতে হবে।  হলুদে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি উপাদান ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। 

৩. বরফের সেঁক- বরফের সেঁক কিছু পরিমাণ বরফের টুকরো একটি কাপড়ে পেঁচিয়ে নিতে হবে। অথবা আইস ব্যাগ ব্যবহার করতে হবে। এটি পায়ের ব্যথার স্থানে রাখতে হবে ১০ থেকে ১৫ মিনিট। এটি কিছুক্ষণ করতে হবে।  তবে বরফ সরাসরি ত্বকে ব্যবহার করা যাবে না।

৪.লেবুর রস- লেবুর রস সমপরিমাণ লেবুর রস এবং ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে নিতে হবে। এই মিশ্রণটি দিয়ে পায়ের ব্যথার স্থানে ম্যাসাজ করতে হবে। এটি দিনে দুই বা তিনবার করতে হবে। এছাড়া এক কাপ কুসুম গরম জলেতে একটি লেবুর রস এবং সামান্য মধু মিশিয়ে পান করা যেতে পারে।

৫.অলিভ অয়েল- ম্যাসাজ অলিভ অয়েল, নারকেল তেল অথবা সরিষা তেল হালকা গরম করে নিয়ে আলতো হাতে ব্যথার স্থানে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করতে হবে। এটি দিনে ২-৩ বার করতে হবে। ম্যাসাজ রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে স্ট্রেস কমিয়ে দেয়।

৬.আদা- আদা  ব্যথার স্থানে দিনে ২-৩ বার আদার তেল দিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে। এর সাথে দিনে ২-৩ বার আদা চা পান করতে হবে। আদার উপাদান ব্যথা দূর করে পেশীর প্রদাহ দূর করে দিবে। এটি পেশির রক্ত চলাচল সচল করে দেয়।