চুলের সৌন্দর্য কিভাবে বাড়ায় তুলসী পাতা জেনে নিন

চুলের সৌন্দর্য কিভাবে বাড়ায় তুলসী পাতা জেনে নিন

ভেষজ উপাদান হিসেবে তুলসী বেশ কার্যকর। এই উপাদান শুধু চুল পড়া রোধই করে না, এটি একবার ব্যবহারে চুলের রুক্ষতা দূর হয়, চুল ঝলমলে ও মসৃণ হয়। এতে রয়েছে ভিটামিন এ, সি, ই ও কে—যেগুলো একসঙ্গে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস হিসেবে কাজ করে, যা চুলের গোড়া শক্ত করে ও চুল পড়া কমায়। আর এর প্রোটিন ও আয়রন মাথার ত্বকের অক্সিজেন সরবরাহ বাড়িয়ে দেয়,

যা দ্রুত নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান মাথার তালুর সংক্রমণ দূর করে এবং ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে, এর ফলে খুশকি হয় না। অন্যদিকে এর মিনারেল ও ক্যারোটিন চুল মসৃণ করে, যার ফলে চুল ভেঙে যাওয়ার সমস্যা দূর হয়।তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই তুলসী কিভাবে চুলের সৌন্দর্য বজায় রাখে।

১.চুল পড়া কমাতে- ফ্রেশ আর অ্যারোম্যাটিক তুলসী তেল বা বেসিল অয়েল কিন্ত চুলের জন্য দারুণ ম্যাসাজ অয়েল হয়ে উঠতে পারে।চুলে নিয়ম করে তুলসী তেল ম্যাসাজ করতে হবে।মাথার স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালনও বাড়বে।ফলে চুল পড়াও বন্ধ হবে।তুলসী তেলের বদলে বেসিল এসেনশিয়াল অয়েলও ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এতে চুল পড়া বন্ধ হয়ে যায়।

২.খুশকি তাড়াতে- বেসিল অয়েল আর হেয়ার অয়েল একসাথে মিশিয়ে মাথায় ম্যাসাজ করতে হবে। দেখা যাবে কয়েকদিনে খুশকি গায়েব।স্ক্যাল্পের ড্রাইনেস কাটিয়ে  মাথার ইচি ভাব কমায় ও সহজেই আরাম পাওয়া যায়।

৩.পাকা চুল কমাতে- আজকাল নানা কারণে কম বয়সেই অনেকের চুল পেকে যায়।তাঁরা কিন্তু তুলসী দিয়ে এই সমস্যার সমাধান করতে পারেন খুব সহজেই।তুলসী পাতার গুঁড়ো আর আমলকীর গুঁড়ো সারারাত জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে।এবার পরদিন সকালে এই মিশ্রণটি ছেঁকে নিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলতে হবে।কিছুদিনের মধ্যেই দেখা যাবে পাকা চুলের সমস্যার থেকে রেহাই পাওয়া গেছে।

৪.ঘন চুল পেতে- ঘন চুল সব মানুষই চায়।আমলকী গুঁড়োর সাথে বেসিল অয়েল আর হেয়ার অয়েল মিশিয়ে চুলে ভালো করে ম্যাসাজ করতে হবে।২০-২৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।দিন কয়েক পরেই বোঝা যাবে পরিবর্তন।

৫.চুলের বৃদ্ধি করতে- বেসিল অয়েল নিয়ে মাথায় ভালো করে ম্যাসাজ করতে হবে।সপ্তাহে অন্তত দুবার নিয়ম করে এটা করে দেখতে হবে।দেখা যাবে চুল তাড়াতাড়িই বাড়ছে।তাছাড়া স্ক্যাল্পকে আরাম দিতেও কিন্তু বেসিল অয়েল ম্যাসাজের জুড়ি নেই।

৬.চুলের রুক্ষতা দূর করতে- চুলে শ্যাম্পু করার অন্তত ২০ মিনিট আগে তুলসী পাতার রস দিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করে নিতে হবে। এতে প্রতিদিন শ্যাম্পু করার পর চুল রুক্ষ হবে না।