শরীরকে সুস্থ রাখতে চাইলে নিয়মিত পিচ ফল খান

শরীরকে সুস্থ রাখতে চাইলে নিয়মিত পিচ ফল খান

পিচ ফল অনেকে ভালোবাসেন, অনেকে আবার নন। তবে এই ফল দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনি স্বাস্থ্যের জন্যেও ভালো। দিন দিন যেভাবে রোগ জ্বালা বাড়ছে তাতে ফলমূল, শাকসবজি বেশি করে খেতে হবে। এই ভাবনা ভুল যে শুধু মাছ মাংস খেলেই স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। ভিটামিন এ এবং সি সমৃদ্ধ পিচ ফল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, ত্বকের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে এবং একইসাথে দৃষ্টিশক্তি উন্নত করে।ফলটি মূলত উত্তর-পশ্চিম চিনের, তবে এর নানা গুণের জন্য এদেশেও প্রসিদ্ধ। এর বিজ্ঞানসম্মত নাম প্রুনাস পার্সিকা।খেতে ভীষণ সুস্বাদু পিচ ফল। ভিটামিন, খনিজ, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং বায়োফ্লাভোনয়েডস উপাদান সমৃদ্ধ এই ফলের উপকারিতা অনেক। তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই পিচ ফলের উপকারিতা সম্পর্কে।

১.ওজন কমাতে- শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে কমলা-হলুদ রঙের এই ফল দারুণ কার্যকরী। পিচ ফল ফাইবারের অন্যতম উৎকৃষ্ট উৎস, আর ফাইবার ওজন কমাতে সাহায্য করে।

২.ক্যান্সার প্রতিরোধ করে- পরীক্ষায় দেখা গেছে, পিচ ফল স্তন ক্যানসার প্রতিরোধ করে। পাশাপাশি এটি মানুষের শরীরে কোলন ক্যানসার কোষের বৃদ্ধি রোধ করে।পিচের মধ্যে উপস্থিত উপাদানগুলি কেবল স্তন ক্যানসার কোষের বৃদ্ধিতে বাধা দেয় না, এটি ফুসফুসের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে।

৩.দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়- এই ফলে লুটেইন এবং জেক্সানথিনের মতো অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ফাইটোনিউট্রেয়েন্টের উপস্থিতি চোখের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে। অন্য একটি পরীক্ষায় বলা হয়েছে এই দুটি ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট রেটিনার আঘাতের কারণে চোখের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

৪.হজম শক্তি বাড়ায়- পিচ ফল হজম শক্তি বাড়াতে দারুণ কার্যকরী। একটি মাঝারি আকারের ফল প্রায় ২ গ্রাম ফাইবার সরবরাহ করে – যার অর্ধেক দ্রবণীয়, অন্য অর্ধেকটি অদ্রবণীয়। পেট পিচ ফল পরিষ্কার রাখে এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে।

৫.হার্টের উন্নতি করে- নিয়মিত পিচ ফল খেলে হার্টের সমস্যা এড়াতে পারা যায়। এটি উচ্চ রক্তচাপ এবং কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

৬.স্ট্রেস কমায়- পিচ ফল মানসিক চাপ দূর করতে দারুণ কার্যকরী। এটি দুশ্চিন্তা মুক্ত করে। হাঙ্গেরিতে একে “শান্তির ফল” বলা হয়।

৭.রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়- ইমিউন-বুস্টিং নিউট্রিয়েন্টস এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ পিচ। পরীক্ষায় দেখা গেছে, এটি ব্যকটেরিয়ার সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করে।

৮.ত্বকের জন্য উপকারী- পিচ প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ সমৃদ্ধ যা ত্বকের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। ত্বক উজ্জ্বল করে।পিচ ফল প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান ত্বকের বলিরেখা দূর করে, ত্বক উন্নত করে এবং সূর্য ও দূষণ থেকে ত্বককে রক্ষা করে।