বিবাহিত জীবনে সুখী হতে চাইলে এই উপায়গুলো অবলম্বন করুন

বিবাহিত জীবনে সুখী হতে চাইলে এই উপায়গুলো অবলম্বন করুন

নিজ পছন্দে বা পরিবারের পছন্দে দুজন নর-নারী বিবাহের বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিবাহিত জীবন মানেই হাজারো দায়িত্ব। সবকিছু মেনেই প্রত্যেক স্বামী-স্ত্রী সুখের সংসার গড়ে তোলেন। চেষ্টা করেন যেন তাদের বিবাহিত জীবন স্বপ্নের মতোই সুন্দর হোক।তবে বিয়ের পর সাংসারিক জীবনে কথা কাটাকাটি, তর্ক-বিতর্ক ও ছোট খাটো বিষয় নিয়ে ঝামেলা হয়ে থাকে।

এটা স্বাভাবিক। তবে ছোট ছোট এসব ঝামেলা বা সমস্যা সমাধান করতে না পারলে পরিস্থিতি বদলে যায়। বিপরীতও হয়ে উঠে কখনো কখনো। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সংসার টেকানোই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে।তাই এসব ঝামেলা এড়িয়ে কীভাবে বিবাহিত জীবন স্বপ্নের মতো সুন্দর করে গড়ে তুলবেন তার কিছু উপায় জেনে নেওয়া যাক-

১.চলার পথে সচেতন থাকতে হবে- নিজে সুস্থ ও ভালো থাকলে সম্পর্কও ভালো থাকবে এবং ভালোবাসার মানুষটিও। তাই চলার পথজে সচেতন থাকুন।

২.চাহিদা পূরণ করতে হবে- সঙ্গীর যদি কিছু প্রয়োজন হয় তাহলে সেই চাহিদা পূরণ করুন। একজন উপযুক্ত সঙ্গী এসব চাহিদা পূরণ করে সবসময় পাশে থাকে।

৩.ভেবে কথা বলতে হবে- একে অপরের সঙ্গে কথা বলার আগে অবশ্যই ভেবে বলুন। এমন কোনো কথা বা ব্যবহার করবেন না, যে কথায় বিপরীত মানুষটি মনে আঘাত পায়।

৪.একসঙ্গে ঘুরতে যেতে হবে- বৈবাহিক সম্পর্ক কিন্তু নিঃসন্দেহে প্রেমের থেকে বড় মধুর সম্পর্ক। এতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যেমন প্রেম-ভালোবাসা থাকে তেমনি আবার মান-অভিমানও অনেক বেশি থাকে। তাই মাঝে মধ্যে পরিবারের বাইরে দু’জন একসঙ্গে দূরের কোথাও থেকে ঘুরে আসুন। মন ভালো থাকবে। মনে প্রেমের সঞ্চার হবে।

৫.অধিকারমূলক ব্যবহার কম করতে হবে- যে কোনো সম্পর্কে অধিকারমূলক ব্যবহার থাকা ভালো, তবে এটি অতিরিক্ত হলে সমস্যা। এতে করে সম্পর্ক নিয়ন্ত্রণে প্রভাব ফেলতে পারে। তাই সম্পর্কে বিশ্বাসের সঙ্গে অধিকারমূলক ব্যবহার রাখতে হবে।

৬.সব কথা শেয়ার করতে হবে- বিয়ে মানেই দুটি পরিবারের মেল বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া। তাই স্বামী-স্ত্রীর অবশ্যই সেভাবে চলতে হবে যাতে করে তাদের দু’জনের কোনো ব্যবহারের জন্য দুই পরিবারের সম্পর্কের মধ্যে কোনো ফাটল না ধরে। তাই বিয়ের আগে কোনো সম্পর্ক থাকলে বা নিজের ভালো-মন্দ কিছু থাকলে তা জীবনসঙ্গীর সঙ্গে শেয়ার করুন। এতে কারো প্রতি কারো কোনো সন্দেহ থাকবে না। জীবন হবে স্বপ্নের মতো সুন্দর।