জ্যোতিষ বিচারে মাধ্যমিকের পর কারা কী নিয়ে পড়বে

জ্যোতিষ বিচারে মাধ্যমিকের পর কারা কী নিয়ে পড়বে

জাতক-জাতিকাদের রাশি অনুযায়ী পড়াশোনায় কেমন ফল পাওয়া যাবে সেই বিষয়ে আলোকপাত করা যাক। (তবে জাতক-জাতিকাদের শিক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে সঠিক ফলাদেশ ব্যক্তিগত কোষ্ঠী বিচার করে দেওয়া যেতে পারে।)এখন দেখে নেওয়া যাক মেষ ও বৃষ  রাশির জাতক-জাতিকা শিক্ষাক্ষেত্রে কোন দিকে সাফল্য পেতে পারেনঃ—

মেষ রাশিঃ-

মেষ রাশির জাতক-জাতিকারা যারা এ বছর মাধ্যমিক পাশ করবে তাদের লগ্নের পঞ্চমে বা নবমে যদি মেষ রাশি থাকে এবং অশ্বিনী নক্ষত্রে বা ভরণী নক্ষত্রে চন্দ্রের অবস্থান হয় তাহলে সেই সকল জাতক-জাতিকাদের বিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করলে ভালো হবে।

এই সকল জাতক-জাতিক-জাতিকাদের ইঞ্জিনিয়ার, বৈজ্ঞানিক হতে দেখা গেছে।

সপ্তম ও দশম স্থানে যদি মেষ রাশির অবস্থান হয় তাহলে বাণিজ্য বিষয়ে পড়াশোনা করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

জাতকের চন্দ্রস্থিত রাশির অধিপতি গ্রহ মঙ্গল অষ্টমে যদি কর্কটে অবস্থান করে এবং তিন ডিগ্রি নীচে আর সাতাশ ডিগ্রির ওপরে হয় তাহলে শিক্ষাগত যোগ্যতা বেশিদূর এগোবে না।

অবশ্য লগ্নপতি যদি বলবান থাকে এবং শুভযুক্ত বা শুভ দৃষ্ট হয় এবং রাশির ওপরও শুভ গ্রহের দৃষ্টি থাকে তাহলে অনেক চেষ্টা ও অধ্যবসায়ের দ্বারা শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠা পাবে।

বৃষ রাশিঃ-

বৃষ রাশির জাতক-জাতিকাদের লগ্নের পঞ্চমে বা নবমে যদি বৃষ রাশি অবস্থান করে থাকে তারা যে কোনও বিষয়ে পড়াশোনা করলে সফল হবে।

লগ্নের পঞ্চম বা নবমপতি গ্রহ যদি চন্দ্রস্থিত রাশির অধিপতি হয় এবং স্বক্ষেত্রে বা তুঙ্গ ক্ষেত্রে অবস্থান করে থাকে তাহলে যে কোনও বিষয় নিয়েই পড়াশোনা করুক না কেন তারা সাফল্য লাভে সক্ষম হবে।

চন্দ্রস্থিত রাশির অধিপতি যদি দুর্বল বা পীড়িত হয় তাহলে বাধা-বিপত্তির মধ্য দিয়ে সাধারণ সফলতা পাওয়া যাবে।