ফ্যাটি লিভার কেন হয় জেনে নিন

ফ্যাটি লিভার কেন হয় জেনে নিন

বর্তমান জীবন বড়ই ব্যস্ততার। দৌড়ঝাপের মাঝে খাওয়াদাওয়া এবং শরীরের সঠিক যত্ন নেওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না অনেকেরই। অনিয়মিত জীবনযাপন এবং অস্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়ার ফলস্বরূপ শরীরে বাসা বাঁধতে থাকে নানা অসুখ বিসুখ। সেই সমস্ত সমস্যার মধ্যে একটি হল ফ্যাটি লিভার। ফ্যাটি লিভারের সমস্যা আজকাল অনেকের মধ্যে দেখা দেয়।

তবে এটি এমন একটা রোগ যাকে আমরা খুব একটা আমল দিই না। খুব সাধারণ একটি সমস্যা হিসেবে গণ্য করা হয়। অনেকে ভাবেন ফ্যাটি লিভার তেমন কোনও গুরুত্বর সমস্যা নয়। কিন্তু সত্যিই কি ফ্যাটি অ্যাসিড সাধারণ সমস্যা? এতে ভয়ের কিছু নেই? চিকিৎসকদের মত কিন্তু এমনটা নয়। সঠিক সময় ফ্যাটি অ্যাসিড ধরা না পড়লে এবং সঠিক চিকিৎসা না করালে ভবিষ্যতে আরও বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই ফ্যাটি লিভার এর কারণ সম্পর্কে।

১.অত্যধিক ক্যালোরি – অত্যধিক ক্যালোরি যুক্ত খাবার বেশি খেলে লিভারে ফ্যাট তৈরি হয়। এই অতিরিক্ত মেদ ফ্যাটি লিভারের সমস্যা জন্ম দেয়।

২.লিভারের কার্ষকারিতা কম হলে – এটি ফ্যাটি লিভার হওয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কারণ। যখন কোনও কারণে লিভারের প্রক্রিয়া প্রভাবিত হয়, তখন এটি ফ্যাট ছিন্ন করার প্রক্রিয়াটি পরিচালন করতে অক্ষম হয়। ফলস্বরূপ, লিভারে অতিরিক্ত ফ্যাট জমতে থাকে। পরবর্তীকালে তা ফ্যাটি লিভারের সমস্যা সৃষ্টি করে।

৩.শারীরিক সমস্যা- নির্দিষ্ট কোনও সমস্যা, যেমন স্থূলতা, ডায়াবেটিস এবং হাই ট্রাইগ্লিসারাইডস ইত্যাদির কারণে লিভার সম্পর্কিত ঝুঁকি বাড়ায়। এই ধরণের শারীরিক সমস্যা থাকলে ফ্যাটি লিভার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

৪.মদ্যপান – যেমনটা আগেই উল্লেখ করা হয়েছে, যে অ্যালকোহল সেবনও ফ্যাটি লিভারের সমস্যা তৈরি করতে পারে। যদি তা সময়মতো নিয়ন্ত্রণ না করা হয় তাহলে লিভার পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল হয়ে যায়।

৫.দ্রুত ওজন হ্রাস – খুব তাড়াতাড়ি ওজন কমানোর কারণে ফ্যাটি লিভারের সমস্যা হাজির হতে পারে। কারণ লিভার হজম প্রক্রিয়ায় প্রধান ভূমিকা পালন করে। প্রয়োজনীয় ডায়েট না পাওয়ায় লিভারের প্রক্রিয়া প্রভাবিত হয়। ফলস্বরূপ, যাই খাবেন তা সরাসরি চর্বি হিসেবে লিভারে জমা হতে থাকবে।