রাতে শোবার আগে এই কাজগুলো করলে মুখ উজ্জ্বল হয়

রাতে শোবার আগে এই কাজগুলো করলে মুখ উজ্জ্বল হয়

গুণী হলে সকলেই আপনাকে সন্মান করবেন তার সঙ্গে মিষ্টি ভাসি ও রূপের ও কিছু অবদান থাকে আমাদের জীবনে। বর্তমান যুগে সবাই নরম ও উজ্জ্বল ত্বক চায়, তা ফর্সা কিংবা সামলে হোক।কিন্তু সঠিক ত্বকের যত্নের অভাবে ত্বক খুব শুষ্ক ও নিস্তেজ দেখায়। শুষ্ক মুখ থেকে মুক্তি পেতে, লোকেরা অবশ্যই সকালে কাজে যাওয়ার আগে ময়েশ্চারাইজার লাগান ও আশা করেন তাতে ক্ষতি পূরণ হবে, তবু রাতে মুখের যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন মনে করেন না।তাই রাতে শোবার আগে এই কাজগুলো করলে মুখ উজ্জ্বল হয়। তাহলে জেনে নেওয়া যাক কি কি কাজ।

১.মেক আপ রিমুভ করতে হবে- বাইরে থেকে এসে মুখের মেকআপ তুলতে হবে প্রথমে।রাতের ত্বকের যত্নের প্রথম ধাপ হল সকালে মেকআপ তুলে ফেলা। এর জন্য আপনি মাইসেলার ওয়াটার, মাইল্ড মেকআপ রিমুভার এবং গোলাপ জল ব্যবহার করতে পারেন। মেকআপ ধুয়ে ফেললে ত্বক শুষ্ক হবে না।

২.মুখ পরিষ্কার করতে হবে- মুখ পরিষ্কার করা প্রয়োজন। মেকআপ অপসারণের পরে, আপনার মুখ পরিষ্কার করা উচিত। এর জন্য যেকোনো হালকা ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। ফেসিয়াল ক্লিনজিং করলে ত্বকে জমে থাকা সমস্ত ময়লা সহজেই দূর হয়ে যায় এবং মুখ পরিষ্কার ও ময়লামুক্ত হয়ে যাবে আপনার।

৩.টোনার- মুখে টোনার লাগাতে হবে।আপনার মুখ পরিষ্কার হয়ে গেলে তাতে টোনার লাগান। কারণ টোনার মুখকে মসৃণ করে এবং ত্বকের পিএইচ লেভেলের ভারসাম্যও বজায় রাখে। যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য হাইড্রেটিং টোনার ব্যবহার করা উচিত, এতে ত্বকে আর্দ্রতা বজায় থাকবে ও শুষ্কতার থেকে মুক্তি পাবেন।

৪.সিরাম লাগাতে হবে- এরপর সিরাম প্রয়োগ করুন। ত্বক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মুখে সিরাম লাগালে ত্বকের অনেক সমস্যা দূর হয়। আপনার ত্বকের সমস্যা অনুযায়ী সিরাম বেছে নিতে পারেন। অ্যান্টি অ্যাকনে, অ্যান্টি এজিং বা তেল নিয়ন্ত্রণ সিরামের মতো। যেটি আপনার প্রয়োজনীয় সেটি ব্যাবহার করুন।

৫.ময়েশ্চরাইজ করতে হবে- ময়েশ্চারাইজও গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি শুষ্ক ত্বকের সমস্যায় অস্থির থাকেন, তাহলে ময়েশ্চারাইজিং আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। এজন্য পুষ্টিগুণে ভরপুর তেল বা ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এতে ত্বক মেরামত হবে, ক্ষতির হাত থেকে পাবেন মুক্তি।