আপনার বিবাহ কোথায় হবে জানুন

আপনার বিবাহ কোথায় হবে জানুন

জাতকের লগ্নপতি যে ঘরে অবস্থান করবে তার পঞ্চম অথবা নবম স্থান হবে জাতিকার লগ্ন। অথবা জাতকের লগ্নপতি বা ভাবটি হবে তুঙ্গ স্থান বা জন্মছকে জাতকের সপ্তমস্থান। জাতিকার বিবাহ হবে সেই দিকে যা তার সপ্তমভাব নির্দেশ করবে। এটা জাতক বা জাতিকার উভয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। 
১। যদি লগ্নপতি সপ্তমস্থানে অবস্থান করে এবং কোনও শুভগ্রহ তার সঙ্গে অবস্থান করে জন্মছকে, তাহলে জাতিকার বিবাহ ভাল পরিবার বা কোনও উচ্চবংশ নির্দেশ করে। 


২। যদি চন্দ্র সপ্তমস্থানে অবস্থান করে এবং ওই স্থানে যদি মঙ্গলের দৃষ্টি থাকে বা কোনও গ্রহের শুভ দৃষ্টি পড়ে তা হলে জাতক-জাতিকার দূরে বিবাহ হয়। 
৩। যদি সপ্তমপতি ও সপ্তমভাব খুবই শক্তিশালী হয় তাহলে  জাতক বা জাতিকার উচ্চবংশে বিবাহ হয়। কিন্তু যদি সপ্তমভাব খুবই দুর্বল হয় তা হলে তার স্বামী বা স্ত্রী আপাত দৃষ্টিতে কোনও কুলীন বংশজাত না হবার যোগ নির্দেশ করে। 


৪। লগ্নপতি যদি সপ্তমস্থানে অবস্থান করে এবং তার সঙ্গে যদি অশুভ কোনও গ্রহ যুক্ত হয় তা হলে জাতক বা জাতিকার পরিবার কোনও ভাল বংশের দিকেই নির্দেশ করে।
৫। সপ্তমপতির Longitude এবং ক্ষেত্রের ডিগ্রির যোগফল থেকেও জাতক বা জাতিকার বিবাহ দিক নির্ণয় করা যায়। 
৬। আবার একই ভাবে সপ্তমস্থানে চন্দ্র অবস্থান করে এবং ওই স্থানে মঙ্গলের দৃষ্টি পড়ে, তা হলে জাতক-জাতিকার বিবাহের যোগাযোগ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে হয়ে থাকে।